বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ৯ বৈশাখ ১৪২৮
অনলাইন ডেস্ক
  ০৮ এপ্রিল ২০২১, ১৭:৫৩

অবাঞ্ছিত আঁচিল দূর করার উপায়

অবাঞ্ছিত আঁচিল দূর করার উপায়
সংগৃহীত ছবি

শরীরের যেকোনো স্থানে অবাঞ্ছিত আঁচিলের সমস্যায় অনেকেই ভুগে থাকেন। মুখে অতিরিক্ত আঁচিল সৌন্দর্য অনেকটাই ম্লান করে দেয়। নিরুপায় হয়ে অনেকেই লেজারের সাহায্য নিয়ে থাকেন। তবে তা ব্যয়বহুল হওয়ায় সম্ভব হয় না সবার পক্ষে।

ঘরোয়া চিকিৎসার মাধ্যমেও কিন্তু আঁচিলের সমস্যা থেকে নিস্তার পেতে পারেন। রান্নাঘরে থাকা কয়েকটি উপাদান দিয়েই আঁচিল দূর করা সম্ভব। চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার আগে অবাঞ্ছিত আঁচিলের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ঘরোয়া কয়েকটি উপায় অনুসরণ করুন।

মধু: আঁচিল দূর করতে মধুও কার্যকরী ভূমিকা রাখে। এজন্য আঁচিলের ওপর মধু লাগিয়ে ব্যান্ডএড দিয়ে আটকে নিন। এক ঘণ্টা পরে ব্যান্ডএডটি খুলে আঁচিলের স্থানটি ধুয়ে ফেলুন। দিনে তিনবার উপায়টি অনুসরণ করলেই আঁচিল দূর হয়ে যাবে কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই।

রসুন: সামান্য রসুন কীভাবে আঁচিল দূর করবে? নিশ্চয়ই এমনটি ভাবছেন! সামান্য উপাদানটির গুণাগুণ কিন্তু অসামান্য। রসুনে এমন কিছু উপাদান আছে, যা আঁচিলের চিকিৎসায় কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

রসুনের একটি কোয়া ব্যান্ডএডের সাহায্যে আঁচিলের উপর লাগিয়ে সারারাত রেখে দিন। টানা তিন সপ্তাহ এ পদ্ধতি অনুসরণ করলেই ফলাফল দেখে আপনি চমকে উঠবেন! রসুনের কোয়ার পরিবর্তে আঁচিলের উপরে রসুনের পেস্টও লাগাতে পারেন।

আলু: এক টুকরো আলু আঁচিলের উপর কিছুক্ষণ ঘঁষে তারপর ব্যান্ডএডের সাহায্যে আঁচিলে সারারাত লাগিয়ে রাখুন। ৭-১০ দিন পর দেখবেন আঁচিল খসে পড়ে গেছে।

আলুতে থাকা প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান আঁচিল দূর করতে সাহায্য করে। সেইসঙ্গে যেকোনো দাগও মিলিয়ে দিতে পারে আলুর গুণাগুণ।

হলুদ: যুগ যুগ ধরে আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় প্রাকৃতিক উপাদানটি বিভিন্ন রোগের দাওয়াই হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আঁচিলের চিকিৎসায়ও হলুদ কাজে লাগে।

এজন্য ১ চামচ হলুদ গুঁড়োর সঙ্গে ১টি ভিটামিন সি ট্যাবলেট গুঁড়ো করে মিশিয়ে দিতে হবে। এরপর তাতে অল্প করে মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে আঁচিলের ওপর ব্যবহার করতে হবে। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন দুইবার এটি ব্যবহারের ফলে আঁচিল থেকে মুক্তি পাবেন।

পেঁয়াজের রস: ত্বক ও চুলের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে পেঁয়াজের রস খুবই উপকারী। আঁচিল দূর করতে তুলায় পেঁয়াজের রস নিয়ে নির্দিষ্ট স্থানে ব্যবহার করে ১ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে। এরপর ধুয়ে ফেলতে হবে স্থানটি।

দিনে তিনবার এভাবে পেঁয়াজের রস আঁচিলের স্থানে ব্যবহার করলে দ্রুত সেটি খসে পড়বে। পেঁয়াজের রস ব্যবহারের ফলে ত্বকের ভেতরে বিশেষ কিছু অ্যাসিডের মাত্রা বাড়তে শুরু করবে। এ কারণে আঁচিল খসে পড়তে সময় লাগবে না।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।

আঁচিলের
আরও খবর
  • সর্বশেষ
  • আলোচিত